Paddington মুভি রিভিউ – এক মিষ্টি ভাল্লুকের আত্বকথা!

Paddington মুভি রিভিউ – এক মিষ্টি ভাল্লুকের আত্বকথা!

হ্যালো গাইজ! আম ব্যাক!!
এবার আপনাদের জন্যে নিয়ে আসছি কিছুটা পুরনো এনিমেটেড মুভি প্যাডিংটন এর স্পয়লার ফ্রি রিভিউ!

সভ্য জগত থেকে অনেক অনেক দূরে ডার্কেস্ট পেরুর এক গহীন অরন্যে পাস্তুজা আংকেল ও লুন্সি আন্টিকে নিয়ে খুব সুখে অন্ন ও মার্মালেড ধ্বংস করে আরামেই দিন কাটছিলো প্যাডিংটন নামের ছোট্ট কিউট ভাল্লুকের! বিরল প্রজাতির এই ভাল্লুক পরিবারের কপালে হঠাত করে নেমে আসে দুর্যোগের কালমেঘ। যার কারনে জংগল ছাড়তে হয় ছোট্ট ভাল্লুক কে। বের হতে হয় নতুন আশ্রয়ের খোঁজে।

ছোট বেলায় আংকেল-আন্টি পিচ্ছি ভালুককে শিখিয়েছিলেন কীভাবে মানুষের মত সভ্য হতে হয়,এবংতাদের মত আচরণ করতে হয়। এবং শুনিয়েছিলেন লন্ডন এবংসেখানকার মানুষের গল্প!
নতুন ঘরের খোজে একবুক আশা নিয়ে আমাদের এই পিচ্ছি ভাল্লুক তাই রওনা দেয় লন্ডনের পথে!
তো কেমন ছিলো পিচ্ছি ভাল্লুকের লন্ডনের অভিযান?
পাস্তুজা ও লুসি আন্টির গল্পের মত লন্ডনের কি কোন মিল আছে?
নতুন ঘরের খোঁজ সে কি পেয়েছিলো শেষপর্যন্ত?

আমি এসব কিছুই বলবো না। এসব জানতে হলে,এবং পিচ্ছি ভাল্লুকের লন্ডন যাত্রা দেখতে হলে আপনাকে দেখতে হবে ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এনিমেটেড মুভি  প্যাডিংটন !

Advertising

এ তো গেল মুভির প্লট।আশা করি স্পয়লার দেই নি।

প্যাটিংটন হালকা ধাঁচের মুভি।কমেডি সিন গুলো দারুণ ছিলো।গল্প বলার স্ট্যাইল ও ভালো ছিল।সহজ সরল স্টোরি টেলিং এর কারনে  ছোট বড় মুরুব্বি থেকে শুরু করে যে কেউ ছবির কাহিনির সাথে সহজেই রিলেট করতে পারবেন।

Cradit:wall.alphacoders.com

আপনি এনিমেশন মুভির ফ্যান হোন আর নাই হোন, মুভিটি আপনাকে কোনভাবেই হতাশ করবে  না। বরং ভাল সম্ভাবনা আছে পিচ্ছি ভাল্লুকটির ফ্যান বনে যাওয়ার!

এই ছবিটি যে দর্শকদের মোটেও হতাশ করে নি,বরং মিটিয়েছে প্রত্যাশার ষোল আনা তার প্রমান মুভি ক্রিটিকস ওয়েবসাইট গুলির স্কোরে।
আইএমডিবিতে ১০ এ ৭.২ মেটাক্রিটিক এ ৭৭% এবং পঁচা টমেটোতে ৯৮% স্কোরই বলে দেয় এই মুভিটি আপনার ৯০ মিনিট সময়কে এন্টারটেইন করতে বাধ্য!
এ ছাড়া ছবিটি দর্শকমহলের দারুণ প্রসংসা কুড়িয়ে নেওয়ায় দু বছর পর এর সিক্যুয়েল হিসেবে প্যাডিংটন টু রিলিজ করা হয়ে ছিলো।
এ ছাড়া যারা ছোট বাচ্চাদের জন্যে মুভি খুজেন তাদের জন্যে এটা বেস্ট চয়েজ হতে পারে। কিংবা যারা পরিবার পরিজন নিয়ে সপ্তাহান্তে মুভি দেখতে চান,তাদের জন্যেও এটা বেস্ট রেকমেন্ড হতে পারে!

ইংরেজি বুঝি না বলে যারা এড়িয়ে যাওয়ার ধান্ধা করতেসেন তাদের জন্যে বলে রাখি এই মুভির একটা দুর্দান্ত বাংলা সাবটেইটেল ও আছে।
যারা বাংলা সাব দিয়ে দেখেন তাদের জন্যে এটা নিঃসন্দেহে দারুণ খবর, এবং যারা দেখেননাই তারা দেখতে পারেন। সাবটাইটেলের মান ভালো হওয়ায় আমি আপনাদের রেকমেন্ড করবো বাংলা সাব দিয়েই মুভিটি দেখতে!

হ্যাপি ওয়াচিং!

May 15, 2019 - Posted by Shujon - No Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *